অরুণাভ বেরা,ঘাটাল: বাইশ গজের পিচে দুরন্ত পেস বল। ব্যাট নিয়ে ক্লাসিক ক্রিকেটের শৈল্পিক ছন্দে বোলারের মোকাবিলা করা আর দিনভর ক্রিকেটের স্বপ্ন দেখা—এই নিয়েই এগোচ্ছে নবম শ্রেণীর ছাত্রী সুদেষ্ণা মোদক। ঘাটাল বসন্তকুমারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী সুদেষ্ণার বাড়ি ঘাটাল শহরের কুশপাতায়। ছয় বছর বয়স থেকে ক্রিকেট খেলা শুরু। প্রথমে পাড়ায় তারপর মাঠে। উৎসাহ দেন বাবা রঘুনাথবাবু ও মা পাপিয়াদেবী। বাবা ওষুধ ব্যবসায়ী। মা গৃহবধূ। ছোটভাই দেবকান্ত দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র।ছিপছিপে গড়নের সুদেষ্ণা প্রতিদিন এক ঘন্টা শরীরচর্চা করে। সবজি, ফল তার খাদ্য তালিকায় থাকে। তেল ও চর্বিজাতীয় খাবার তার নাপসন্দ। নিয়ম মেনে কোনও খাদ্য তালিকা নেই তার।

মোবাইলে খবর পড়তে এইখানে ক্লিক করুন  Whatsapp

মূলত, অল রাউন্ডার সুদেষ্ণা পেস বল করে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পেস বোলারদের বোলিং সুদেষ্ণা নিয়মিত দেখে। একটা বিষয় না বললেই নয়, এখনকার একদিনের ও টোয়েন্টি টোয়েন্টি ক্রিকেটের ধুম ধাড়াক্কাতেও সুদেষ্ণা কিন্তু ক্লাসিক ব্যাটিংই বেশি পছন্দ করে। এর জন্য কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান গাভাসকারের খেলার ভিডিও সে দেখে। মাথা ঠাণ্ডা রেখে বোলিং লাইনে তীক্ষ্ণ নজর রেখে ব্যাটিং করে। চার-ছক্কা মেরে তৃপ্তির পাশাপাশি স্টাইলিস ব্যাটিঙে যেখানে ক্রিকেটের ব্যাকরণ আছে তাতেই তার তৃপ্তি বেশি।
সুদেষ্ণা কলকাতায় লক্ষ্মীরতন শুক্লার বেঙ্গল স্পোর্টস আকাদেমিতে কোচিং নিতে যায়। এছাড়াও মেদিনীপুরেও পিকে সান্যাল মেমোরিয়াল ক্রিকেট কোচিং সেন্টারে কোচ জয়শ্রী সরকারের কাছে সে কোচিং নিতে যায়। এখনও পর্যন্ত সে জেলাস্তরে বেশ কিছু প্রতিযোগিতায় খেলেছে। সিএবি আয়োজিত জেলা টুর্নামেন্টে সুদেষ্ণা সাফল্যের সাথে খেলেছে। ২০১৮ তে একটি প্রতিযোগিতায় ২ওভারে ১০ রান দিয়ে ২ টো উইকেট নিয়েছিল সে। সুদেষ্ণা প্রিয় ক্রিকেটার ঝুলন গোস্বামী এবং ধোনি। ছেলেদের মধ্যে প্রিয় পেসার ভুবনেশ্বর কুমার। কপিলদেবও তার প্রিয় ক্রিকেটার। হাতের জোর বাড়াবার জন্য সুদেষ্ণা যথেষ্ট শরীরচর্চা করে। ঘাটালে থেকে সে যে সমস্যা অনুভব করেছে তা হল এখানে মেয়েদের খেলার পরিকাঠামো ও কোচ নেই।

আরও পড়ুন- ঘাটালের সোনার দোকানে ক্রেতা সেজে দুঃসাহসিক চুরি,সিসিটিভি ফুটেজে উঠল দুষ্কৃতির ছবি

ভবিষ্যতে সে সফল ক্রিকেটার হতে চায়। কোনও পরিস্থিতিতেই খেলা বন্ধ করবে না সে। ঘাটালে মেয়েদের খেলার পরিস্থিতি থাকলে আরও মেয়েরা খেলার সুযোগ পেত বলে সে মনে করে। মফঃস্বল এলাকার সুদেষ্ণা যদি ঠিকমত সুযোগ পায় তা হলে একদিন সে ক্রিকেটার হিসেবে মর্যাদা প্রমাণ করবে বলে আত্মবিশ্বাসী। তাই কর্ড ডিউসের শক্ত বল নিয়ে যখন পেস বল করে কিংবা দুরন্ত সুইপে বলকে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে আনন্দ পায়, হাততালি পায়— জেদ তখন আরও চেপে বসে। ক্রিকেটই তার প্রেম, ভালোবাসা, স্বপ্ন।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here