জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষা মাধ্যমিক দিয়ে ফলাফলের জন্য বসে থাকে না মেধাবী ছাত্রছাত্রীরা। নিজের লক্ষ্যে অবিচল থেকে আগাম পড়াশুনা শুরু করে দেয় তারা। কিন্তু মেধা যখন দুস্থ? উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে টাকা যখন বাধা হয়ে দাঁড়ায়? না আর প্রশ্ন চিহ্ন নয়,দাসপুরের এক সংস্থা সদ্য মাধ্যমিক দেওয়া ছাত্রছাত্রী যাদের মেধা নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। আগামীদিনে তাদের নির্দিষ্ট লক্ষে পৌঁছেদিতে পড়াশুনার খরচ তারা বহন করছে।
সম্প্রতি দাসপুর নবীন সংঘের উদ্যোগে একাদশ শ্রেণিতে বিজ্ঞান বিভাগে পড়তে ইচ্ছুক এমন ৫ জন দুস্থ ও মেধাবি শিক্ষার্থীকে নতুন পাঠ্যপুস্তক দেওয়া হল।

নবীন সংঘের এ হেন উদ্যোগে মুগ্ধ দাসপুরের বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষাকারা।
দাসপুর বরুণা সৎসঙ্গ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুজিত ব্যানার্জী জানান,নবীন সংঘের এমন উদ্যোগে দাসপুর এলাকার অনেক দুস্থ অথচ মেধাবী ছাত্রছাত্রী তাদের লক্ষ্যে পৌঁছতে বাধাপ্রাপ্ত হবে না। নবীন সংঘের এমন কাজে খুশি প্রকাশ করে সংঘকে আরও সামাজিক কাজে অগ্রসর ভূমিকা পালনে সমর্থন জানিয়েছেন দাসপুর কেশবচক দেশগৌরভ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক তারকেশ্বর ঘোষ। দাসপুর নবীন সংঘের অন্যতম সদস্য তথা সাংস্কৃতিক সম্পাদক উজ্জ্বল চৌধুরী জানান,তাঁরা এমন কাজে সদা নিয়োজিত থাকতে চান। এভাবে সমাজের পাশে দাঁড়াতে এলাকাবাসীকে পাশে থাকার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন উজ্জ্বল বাবু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here