দুদিন আগেই নেতাজীকে নিয়ে একটি কবিতা লিখেছিলেন শিক্ষক সূর্যতনয় অধিকারী। তাও আবার অন্যের অনুরোধে, ভাবেননি মাত্র দুদিনেই সে কবিতা নেটদুনিয়ায় এতটা প্রভাব ফেলবে। সূর্যতনয় বাবু বলেন, আমি সূর্যতনয় অধিকারী ,পেশায় শিক্ষক, ছোট্ট বেলা থেকেই কবিতা লিখি,নেতাজীকে নিয়ে সে রকম কোন কবিতা নেই, ভগ্নিসম বাচিক শিল্পী প্রীতি পন্ডিতের অনুরোধে কবিতা টি লিখি,তখনও ভাবিনি যে এটা ভাইরাল হয়ে যাবে। এই মুহূর্তে কয়েক লক্ষ মানুষ এই কবিতাটি শুনে ফেলেছেন ও শেয়ার করেছেন। দুই দিনেই বহু গুনি মানুষের ফোন পেয়েছি। পূর্ব মেদিনীপুরের কোলাঘাটের উত্তর জিঞাদায় আমার বাড়ি । প্রীতির বাড়ি তারকেশ্বর।

আজ আবার তোমাকেই চাই
সূর্যতনয় অধিকারী(8670795055)

যারা এতো বড় দেশটাকে ভাগ করে,
ক্ষমতার অলিন্দে বসতে চেয়েছে-
তাদের গালে সপাটে থাপ্পড় এর নাম নেতাজী ।
যে ক্ষনজন্মার জন্ম না হলে হয়তো,
ভারতবর্ষের স্বাধীনতার সূর্য উঠতো না কোনদিন;
তার নাম নেতাজী,নেতাজী বাঙালীর আবেগের নাম,
নেতাজী বাঙালীর সাহসের নাম
নেতাজী বাঙালীর হৃদপিণ্ড
যার নাম শুনে এখনো খাড়া হয়ে ওঠে প্রতিটি রোমকূপ।
আজও শিরায় শিরায় রক্তের সাথে ছোটে নেতাজীর নাম ….
বাঙালির আজন্ম ভালোবাসা, জাতির হৃদস্পন্দন….স্বাধীনতা ।
যে কোনদিনই চায়নি দেশমাতৃকার অঙ্গচ্ছেদ,
চায়নি কোলকাতা নোয়াখালীর দাঙ্গা, তার নাম নেতাজী ।
আজও ১৪টি লোকসভা নির্বাচন,
স্বাধীনতার ৭১টি বছর পরেও যে রয়ে গেছে অপাঙ্ক্তেয় !
তার নাম নেতাজী ।
তিনটি কমিশন, ২১৭টি ফাইল,৭০ হাজার পৃষ্ঠায় আজও যে চিরন্তন রহস্যময় দেশের মঙ্গলে,
সেই আপোষহীন সংগ্রামের নাম নেতাজী ।
না জানি কত নায়ক খল-নায়ক হবে যদি রহস্য উন্মোচিত হয়,
তুমি চাওনি ক্ষমতা, চেয়েছিলে স্বাধীনতা,
তাই তুমি আজও যুদ্ধ অপরাধী ।
ব্রিটিশ সরকারের মধ্যে যে ভীতির সঞ্চার হয়েছিল,
সেই ভয় এখনো তাড়া করে বেড়াচ্ছে রাষ্ট্রপুঞ্জকে ।
তোমাকে নিয়ে যে আন্তর্জাতিক রাজনীতি,
সেই রাজনীতি আজও চলছে…..
ভারতবর্ষের অফিসে আদালতে তোমার ছবি নেই,
তুমি আছো বিপ্লবের আগুনে…প্রতিরোধের বুলেটে,
এদেশের মুদ্রায় তুমি নেই !
আছো বেকারের মননে, স্বাধীনতার স্বপ্নে, আদর্শের বীজমন্ত্রে ।
ইংরেজদের ছেড়ে যাওয়া লুঠের মালে আজ যাদের আধিপত্য,
তারাই সাদা পাঞ্জাবি পরে ২৩ শে জানুয়ারির সকালে তোমার গলায় মালা দিয়ে,
দেশপ্রেমিক সেজে দেশপ্রেমের বুলি আওড়ায় !
এলগীন রোডের তিনতলার ঘর,
বি.এল.এ. একাত্তর ঊনসত্তর নাম্বার প্লেটের সেই গাড়ি,
আজও তোমার অপেক্ষায়-
ল এন্ড অর্ডার ভুলুণ্ঠিত, বিক্রি হয়েছে মতাদর্শ,
স্বার্থান্বেষী লুঠেরাদের দেশ-লুঠ দেখেও কি তুমি…
ঠাঁই দাঁড়িয়ে থাকবে শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড়ে,
একটা গোটা জাতিকে ঝুঁকি নিয়ে লড়বার অনুপ্রেরণায়-
আজ আবার তোমাকেই চাই ।
আজ দেশটাকে যারা বিকিয়ে দিতে চাইছে,
তাদের বিরুদ্ধে আপোষহীন সংগ্রামে তোমাকে চাই ।
চাই জাতপাতের বিভেদের রাজনীতি রুখতে,
চাই বেকারের ‘দুটি হাতে একটি কাজ’-এর জীবন সংগ্রামে…
তোমাকে চাই ক্ষুধাতুর শিশুর ভাতের লড়াইয়ে ।

মোবাইলে নিয়মিত খবর পড়তে এইখানে ক্লিক করুন Whatsapp

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here