প্রতিবছর গ্রামের এখনও অনেক মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী থাকে যারা তাদের পরিবার থেকে প্রথম এই পরীক্ষায় বসে। প্রায় দিশেহারা থাকে এই ছাত্রছাত্রীরা;কী পড়বে,কীভাবে লিখবে ঠিক কীভাবে মানসিক প্রস্তুতি নেবে কিছুই বুঝে উঠতে পারে না।

দাসপুর-১ নম্বর ব্লকের বালিতোড়া বসনবালা উচ্চবিদ্যালয়ে আজ সিপিএমের কলোড়া লোকাল কমিটি ও সড়বেড়িয়ার ডি ওয়াই এফ আই এর উদ্যোগে এক উৎকর্ষ অভিমুখী কর্মশালার আয়োজন করাহল। এই কর্মশালার মূল উদ্দেশ্য ছিল মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা যাতে বিপথে না পরিচালিত হয় সেবিষয়ে শিক্ষার্থীদের সচেতন করা।

এদিন একাধিক শিক্ষাবিদেরা কর্মশালায় উপস্থিত ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদের পরামর্শ দেন পরীক্ষা প্রস্তুতি ও পরীক্ষা পরবর্তি সময়ে শিক্ষার্থীরা ঠিক কী করবে। আর তাদের অভিভাবকদের দায়িত্ব কর্তব্য সম্বন্ধেও সচেতন করেন।

নাড়াজোল রাজকলেজের অধ্যাপক অভিজিৎ চক্রবর্তী, ধান্যখাল উচ্চবিদ্যালয়ের জীব বিদ্যার শিক্ষক তারানাথ কাপাস,নন্দনপুর উচ্চবিদ্যালয়ের বাংলার শিক্ষক শান্তিরাম মাহাতো,খেপুত বয়েজ স্কুলের ইংরেজি শিক্ষক চন্দন ভট্টাচার্য প্রমুখ শিক্ষাবিদেরা এদিন মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন।

ডি ওয়াই এফ আই এর কলোড়া লোকাল কমিটির পত্রিকা সম্পাদক সৈকত দিন্ডা জানান,তাদের এই অনুষ্ঠানে হাজির ছিল ২০১৭-১৮ সালের ঘাটাল মহকুমার সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া সফল পরীক্ষার্থী শিল্পা সাউ। সে তার বাস্তব অভিজ্ঞতা উপস্থিত পরীক্ষার্থীদের কাছে তুলে ধরে।

এদিন সড়বেড়িয়া-১ ও ২,নন্দনপুর-১ ও ২ এবং পাঁঁচবেড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার শতাধিক ছাত্রছাত্রী এই অনুষ্ঠানে হাজির ছিল। ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকরা ডি ওয়াই এফ আই এর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here