বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু কিশোরদের মানবিকতা সবসময়ই সাধারণের থেকে বেশিই হয়। তার আবারও প্রমাণ মিলল দাসপুর নিম্বার্ক মঠের দৃষ্টিহীন ছাত্রছাত্রীদের ভারতীয় শহীদ সেনা জওয়ানদের প্রতি শ্রদ্ধা ভালোবাসা দেখে।

রবিবার সন্ধ্যায় ওই মঠের দৃষ্টিহীন ছাত্রছাত্রীরা ভারতীয় সেনা তহবিলে কিছু অর্থ পাঠানোর উদ্দেশ্যে দাসপুর বাজারে গান গাইল। এদিন সন্ধ্যায় দৃষ্টিহীন ওই সব ছাত্রছাত্রীদের গাওয়া দেশাত্মবোধক সঙ্গীতে দাসপুরবাসী চোখের জলে স্মরণ করল ১৪ ফেব্রুয়ারি শহীদ হয়ে যাওয়া সেই সব ভারতীয় জওয়ানদের এবং যে যেমন পারল অর্থ তুলেদিল তাদের হাতে।

নিম্বার্ক মঠের দৃষ্টিহীন মিনতি,খুকুমণি,প্রদীপ, লক্ষ্মণেরা ১৪ ফেব্রুয়ারির সেই মর্মান্তিক ঘটনায় হতচকিত হয়েছিল। কানে শুনেছিল সন্তান হারা সেই সব শহীদ জওয়ানদের মা বাবার আর্তনাদ। মঠের আচার্যকে তারা জানায়, তারা ওই সব পরিবারের জন্য কিছু করতে চায়। তারা গান গেয়ে ভিক্ষা করে ওই সব শহীদ পরিবারের জন্য কিছু করবে।

মঠ প্রধান সুভাষ ত্রিপাঠী বলেন,ওরা যখন নিজেরাই এগিয়ে এল,আমি আর না করতে পারলাম না। আমি ব্যবস্থা করলাম ওদেরকে দাসপুর বাসস্ট্যান্ডে নিয়ে গিয়ে গান গাওয়াবার।

সুভাষ বাবু জানান,রবিবার দাসপুরের পর চাঁদপুরেও তাঁদের দৃষ্টিহীন ছেলেমেয়েরা শহীদদের জন্য গান গায়। এদিন প্রায় পাঁচ হাজার টাকা তাদের সেনা তহবিলে জমা পড়ে। সুভাষ বাবু বলেন, আমি আপ্লুত আমার ছাত্রছাত্রীদের এই মহান উদ্যোগে।

মঠের ছাত্রছাত্রীরা জানিয়েছে,তারা আরও অর্থ সংগ্রহ করতে চায়। রাজনগর,নাড়াজোল,সিঙাঘাই দাসপুরের আসেপাশের বাস স্টপগুলোতে তারা গান গেয়ে দেশের শহীদ সৈনিকদের জন্য অর্থ সংগ্রহ করবে এবং প্রয়োজনে তারা একদিন উপবাস থেকে সেদিনের খাওয়ার টাকাও সেনা তহবিলে পাঠাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here