তৃপ্তি পাল কর্মকার: ৯ এবং ১০ ফেব্রুয়ারি ঘাটাল মহকুমার বিভিন্ন জায়গা দলমাদল করে বেড়ানো দুই দাঁতালকে অবশেষে বাগনানের রানিহাটিতে পাকড়াও করা হল।  আজ ১২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে বন দপ্তরের কর্মীরা টানা ৬০ ঘন্টা প্রচেষ্টা চালিয়ে বাগনানের রানিহাটি নামে একটি গ্রামে তাদের ঘুমপাড়ানো গুলি করে শান্ত করেন।   সন্ধ্যার মুখে বনদপ্তরের কর্মীরা দাঁতালদুটিকে দড়ি দিয়ে বেঁধে ক্রেনে করে তুলে খড়গপুরের উদ্দেশ্যে নিয়ে আসেন।

প্রসঙ্গত ওই হাতিদুটি ৯ তারিখের রাতে চন্দ্রকোণার আঁধার নয়ন জঙ্গল থেকে দল ছুট হয়ে ক্ষীরপাই আরামবাগ সড়ক পেরিয়ে মাংরুল গ্রামপঞ্চায়েত এলাকায় যায়। সেখানে ১০ তারিখে এক ব্যক্তিকে জখম করে সারাদিনই পুড়শুড়ি, সাঁতিতেঁতুল এলাকায় ছিল। ১০ তারিখের রাতে বন দপ্তরের কর্মীরা হাতি দুটিকে ফের আঁধার নয়ন জঙ্গলে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রচেষ্টা চালান। কিন্তু ব্যর্থ হন। হাতিদুটি ওই রাতেই ঘাটালে আলুই, শ্রীপুর, খানজাপুর হয়ে রূপনারায়ণ নদ পেরিয়ে হাওড়া জেলায় পৌঁছায়। ১১ এবং ১২ ফেব্রুয়ারি হাওড়া জেলাতেই তাণ্ডব চালায়। আজ ১২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে রানিহাটিতে একটি পান বরজের সামনে হাতি দুটি যখন কলাপাতা খাচ্ছিল তখনই তাদের ঘুমপাড়ানো গুলি করা হয়। হাওড়া জেলার পাশাপাশি পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বনদপ্তরের কর্মীরা গিয়ে হাতিদুটিকে বেঁধে রাতের অন্ধকারে খড়্গপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here