নিজস্ব সংবাদদাতা: দীর্ঘ ‘নাটকের’ পর ঘাটালের বিধায়ক শঙ্কর দোলইয়ের জামাই মলয় মাইতি  দাসপুর-১ ব্লকের রাজনগর ইউনিয়ন হাইস্কুলে যোগদান করলেন। আজ ২ মার্চ তিনি যোগদান করেন।  

প্রসঙ্গত, শঙ্করবাবুর মেয়ের সঙ্গে মলয়বাবুর বনিবনা না হওয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে বধূ নির্যাতনের মামলা করা হয়। ফেব্রুয়ারি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে মলয়বাবু জামিনে মুক্ত হওয়ার পর তিনি স্কুলে যোগদান করার জন্য গিয়েছিলেন। মলয়বাবু বলেন, আমার সাসপেনশন না থাকা সত্ত্বেও আমাকে যোগদান করতে দেওয়া হয়নি। রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, শঙ্করবাবুর নির্দেশেই নাকি তাঁর জামাইকে স্কুলে যোগদান করতে দেওয়া হয়নি। মলয়বাবুর বাড়ি কেশপুর থানা এলাকায়। মলয়বাবুকে স্কুলে ঢুকতে না দেওয়ার ঘটনার পাল্টা হিসেবে কেশপুরের তৃণমূল নেতৃত্ব তাদের এলাকায়  ঘাটাল বিধানসভা এলাকার যে স্কুল শিক্ষক-শিক্ষিকা চাকরি করেন তাঁদের স্কুলে ঢুকতে নিষেধ করে। শুধু তাই নয় রাজনগর স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং শিক্ষাকর্মীরাও ধারাবাহিক কর্মবিরতি  পালন করতে শুরু করেন। ফলে দাসপুর-১ ব্লকের তৃণমূল নেতৃত্ব খুব চাপে পড়ে যায়। অবশেষে অনেক জলঘোলার পর আজ মলয়বাবুকে স্কুলে যোগদান করার অনুমতি দেওয়া হয়।

দাসপুর-১ ব্লক তৃণমূল সভাপতি সুকুমার পাত্র ওই বিদ্যালয় পরিচালন কমিটির সভাপতি। তিনি বলেন, এর পেছনে অন্য কোনও কারণ নেই। আমরা এত দিন শিক্ষা দপ্তরের নির্দেশের জন্য অপেক্ষায় ছিলাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here