dfsf

•জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষা মাধ্যমিক পরীক্ষা।  তাই এই  পরীক্ষাকে নিয়ে পরীক্ষার্থীদের মনে একটা ভয় থাকে।  জীবনের সেই প্রথম বড় পরীক্ষার প্রথম দিনেই বিচিত্র অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হল হল ভর্তি ছাত্রীরা। ঘাটাল মহকুমার চন্দ্রকোণা-১ ব্লকের শ্রীনগর হাইস্কুলে  ক্ষীরপাই বয়েজ, হৈমন্তপুর, রামজীবনপুর বয়েজ এবং রামজীবনপুর বালিকা বিদ্যালয়ের মাধ্যমিক পরীক্ষার সিট পড়ে ছিল। ওই স্কুলের ২ নম্বর রুমে গার্ডের দায়িত্বে ছিলেন ক্ষীরপাই বালিকা বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকা এবং তাতারপুর হাইস্কুলের এক শিক্ষিকা। অভিযোগ, তখনও পরীক্ষা শেষ হতে কিছুটা দেরী। ওই রুমের গার্ডের দায়িত্বে থাকা দুই শিক্ষিকা তাঁদের ইচ্ছে মতো সময়ে হলের সমস্ত ছাত্রীদের মাধ্যমিকের খাতা জোর করে কেড়ে নেন। ফলে ভ্যাবাচাকা খেয়ে যান পরীক্ষার্থীরা। তারা ভাবে, এটাই বোধহয় নিয়ম। পরে হল থেকে অসময়ে বেরিয়ে আসতে দেখে অভিভাবকরা চমকে চান। তখনই বিষয়টি জানা যায়। ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শুভ্রকান্তি ঘোষ ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন।

অভিভাবকরা বলেন, ওই সময়ের মধ্যে পরীক্ষাদের যে দু-দশ নম্বর ওঠার সম্ভাবনা ছিল সেই নম্বরে দায়িত্ব কে নেবেন?

•ছবিটি কিন্তু ওই সেন্টারের নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here